ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আ.লীগকে সমাবেশের অনুমতি দেয়নি ইসি

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০১:১৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২৩
  • 116

আগামী ১০ ডিসেম্বর বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে নির্বাচন কমিশন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ঘোষিত সমাবেশ করার অনুমতি দেয়নি বলে জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) সকালে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর ৬০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সুপ্রিম কোর্ট সংলগ্ন তার কবরে শ্রদ্ধা জানানো শেষে এ কথা জানান তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আগামী ১০ ডিসেম্বর মানবাধিকার দিবস। এদিন আমরা বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে একটি বড় সমাবেশ করবো- এরকম একটা কর্মসূচি আমাদের ছিল। আমরা নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদন করেছিলাম। সে আবেদন তারা গ্রহণ করেননি। বাইরে সমাবেশের নামে শোডাউন হওয়ার আশঙ্কা করছে নির্বাচন কমিশন। যে কারণে ১০ ডিসেম্বর আমাদের মানবাধিকার দিবসের আনুষ্ঠানিকতা ভেতরেই পালন করবো। বাইরে যে সমাবেশ করার কথা সেটি করছি না। নির্বাচনি বিধির বাইরে আমরা যেতে চাই না।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, গণতন্ত্রকে শৃঙ্খলমুক্ত করতে শেখ হাসিনার সংগ্রাম বৃথা যাবে না। এ দেশে গণতন্ত্রের পথ মসৃণ নয়, জটিল পথ। সাম্প্রদায়িক, জঙ্গিবাদ, অপশক্তি কখনো গণতন্ত্রকে সমর্থন করে না।

বিএনপিকে লক্ষ্য করে তিনি আরও বলেন, যারা নির্বাচন বয়কট করছে, অবরোধ-হরতাল ডাকছে তারা গণতন্ত্রের শক্তি নয়।

এর আগে ২ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবসে (১০ ডিসেম্বর) বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে বিকাল ৩টায় সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ। পরদিন রবিবার (৩ ডিসেম্বর) নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়ের অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ জানান, নির্বাচনি আচরণবিধি অনুযায়ী রাজনৈতিক দলের সমাবেশ করতে অনুমতি নিতে হবে। ওই দিনই সমাবেশের অনুমতি চেয়ে বিভাগীয় কমিশনার ও রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে চিঠি দেয় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ।

ট্যাগস

আ.লীগকে সমাবেশের অনুমতি দেয়নি ইসি

আপডেট সময় ০১:১৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২৩

আগামী ১০ ডিসেম্বর বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে নির্বাচন কমিশন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ঘোষিত সমাবেশ করার অনুমতি দেয়নি বলে জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) সকালে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর ৬০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সুপ্রিম কোর্ট সংলগ্ন তার কবরে শ্রদ্ধা জানানো শেষে এ কথা জানান তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আগামী ১০ ডিসেম্বর মানবাধিকার দিবস। এদিন আমরা বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে একটি বড় সমাবেশ করবো- এরকম একটা কর্মসূচি আমাদের ছিল। আমরা নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদন করেছিলাম। সে আবেদন তারা গ্রহণ করেননি। বাইরে সমাবেশের নামে শোডাউন হওয়ার আশঙ্কা করছে নির্বাচন কমিশন। যে কারণে ১০ ডিসেম্বর আমাদের মানবাধিকার দিবসের আনুষ্ঠানিকতা ভেতরেই পালন করবো। বাইরে যে সমাবেশ করার কথা সেটি করছি না। নির্বাচনি বিধির বাইরে আমরা যেতে চাই না।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, গণতন্ত্রকে শৃঙ্খলমুক্ত করতে শেখ হাসিনার সংগ্রাম বৃথা যাবে না। এ দেশে গণতন্ত্রের পথ মসৃণ নয়, জটিল পথ। সাম্প্রদায়িক, জঙ্গিবাদ, অপশক্তি কখনো গণতন্ত্রকে সমর্থন করে না।

বিএনপিকে লক্ষ্য করে তিনি আরও বলেন, যারা নির্বাচন বয়কট করছে, অবরোধ-হরতাল ডাকছে তারা গণতন্ত্রের শক্তি নয়।

এর আগে ২ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবসে (১০ ডিসেম্বর) বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে বিকাল ৩টায় সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ। পরদিন রবিবার (৩ ডিসেম্বর) নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়ের অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ জানান, নির্বাচনি আচরণবিধি অনুযায়ী রাজনৈতিক দলের সমাবেশ করতে অনুমতি নিতে হবে। ওই দিনই সমাবেশের অনুমতি চেয়ে বিভাগীয় কমিশনার ও রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে চিঠি দেয় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ।