ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বার্ষিক আয় ৮১ লাখ, স্ত্রীর ১২ কোটি

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ১২:০৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২৩
  • 70

ঢাকা-১২ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের (কামাল) বার্ষিক আয় ৮১ লাখ ৬২ হাজার ৫৩০ টাকা। আর তার স্ত্রীর বার্ষিক আয় ১২ কোটি ২৩ লাখ ৯ হাজার ৯৭৩ টাকা।

নির্বাচন কমিশনে (ইসি) দেওয়া হলফনামায় এ তথ্য পাওয়া গেছে। দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের প্রার্থী হিসেবে হলফনামা তিনি উল্লেখ করেছেন, কৃষিখাত থেকে তার কোনো আয় নেই। তবে, তার কৃষি জমি আছে ১৭১ শতাংশ।

এছাড়া বাড়িভাড়া থেকে মন্ত্রীর আয় ৭ লাখ ২০ হাজার টাকা। ব্যবসা থেকে আয় ২৪ লাখ ৬৯ হাজার ৯৯৬ টাকা। শেয়ার, সঞ্চয়পত্র/ব্যাংক আমানত আছে ১৩ লাখ ৩৩ হাজার ৩০ টাকা। মন্ত্রী হিসেবে বেতন ও ভাতা পান ২৩ লাখ ২২ হাজার ৫০৪ টাকা। অন্যান্য আয় ১৩ লাখ ১৭ হাজার টাকা। মোট বাৎসরিক আয় ৮১ লাখ ৬২ হাজার ৫৩০ টাকা।

অন্যদিকে, তার স্ত্রীর বাড়িভাড়া থেকে আয় ১ লাখ ৯৮ হাজার টাকা। ব্যবসা থেকে আয় ১০ কোটি ১৪ লাখ ১০৯ টাকা। শেয়ার, সঞ্চয়পত্র/ব্যাংক আমানত আছে ৬ লাখ ১১ হাজার ৮৬৪ টাকা। বেতন ও ভাতা পান ২ লাখ ৪০ হাজার টাকা। ফরেন রেমিটেন্স পান ১০ লাখ ৫০ হাজার টাকা। তার মোট বাৎসরিক আয় ১২ কোটি ২৩ লাখ ৯ হাজার ৯৭৩ টাকা।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তার অস্থাবর সম্পদ বিবরণীতে উল্লেখ করেছেন, তার নগদ টাকা আছে ৮৪ লাখ ৪৩ হাজার ৩১৬ টাকা। ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে জমাকৃত টাকা ৮২ লাখ ৯ হাজার ৯১৩ টাকা। বন্ড, ঋণপত্র ও কোম্পানি শেয়ার আছে ২৩ লাখ ৯৭ হাজার ৭০০ টাকার। স্থায়ী আমানতে বিনিয়োগ আছে ২ কোটি ১১ লাখ তিন হাজার ৬৭১ টাকা।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তার স্থাবর সম্পদ বিবরণীতে দেখিয়েছেন, তারা কৃষি জমি আছে ১৭১ শতাংশ। যার অর্জনকালীন মূল্য ১ কোটি ৬১ লাখ এক হাজার ৮৫০ টাকা। অকৃষি জমি আছে ১৮ দশমিক ৫ শতাংশ। যার অর্জনকালীন মূল্য ৫৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা। এছাড়া বাড়ির আর্থিক মূল্য ৯২ লাখ ৯৭ হাজার ৭০০ টাকা।

ট্যাগস

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বার্ষিক আয় ৮১ লাখ, স্ত্রীর ১২ কোটি

আপডেট সময় ১২:০৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২৩

ঢাকা-১২ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের (কামাল) বার্ষিক আয় ৮১ লাখ ৬২ হাজার ৫৩০ টাকা। আর তার স্ত্রীর বার্ষিক আয় ১২ কোটি ২৩ লাখ ৯ হাজার ৯৭৩ টাকা।

নির্বাচন কমিশনে (ইসি) দেওয়া হলফনামায় এ তথ্য পাওয়া গেছে। দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের প্রার্থী হিসেবে হলফনামা তিনি উল্লেখ করেছেন, কৃষিখাত থেকে তার কোনো আয় নেই। তবে, তার কৃষি জমি আছে ১৭১ শতাংশ।

এছাড়া বাড়িভাড়া থেকে মন্ত্রীর আয় ৭ লাখ ২০ হাজার টাকা। ব্যবসা থেকে আয় ২৪ লাখ ৬৯ হাজার ৯৯৬ টাকা। শেয়ার, সঞ্চয়পত্র/ব্যাংক আমানত আছে ১৩ লাখ ৩৩ হাজার ৩০ টাকা। মন্ত্রী হিসেবে বেতন ও ভাতা পান ২৩ লাখ ২২ হাজার ৫০৪ টাকা। অন্যান্য আয় ১৩ লাখ ১৭ হাজার টাকা। মোট বাৎসরিক আয় ৮১ লাখ ৬২ হাজার ৫৩০ টাকা।

অন্যদিকে, তার স্ত্রীর বাড়িভাড়া থেকে আয় ১ লাখ ৯৮ হাজার টাকা। ব্যবসা থেকে আয় ১০ কোটি ১৪ লাখ ১০৯ টাকা। শেয়ার, সঞ্চয়পত্র/ব্যাংক আমানত আছে ৬ লাখ ১১ হাজার ৮৬৪ টাকা। বেতন ও ভাতা পান ২ লাখ ৪০ হাজার টাকা। ফরেন রেমিটেন্স পান ১০ লাখ ৫০ হাজার টাকা। তার মোট বাৎসরিক আয় ১২ কোটি ২৩ লাখ ৯ হাজার ৯৭৩ টাকা।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তার অস্থাবর সম্পদ বিবরণীতে উল্লেখ করেছেন, তার নগদ টাকা আছে ৮৪ লাখ ৪৩ হাজার ৩১৬ টাকা। ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে জমাকৃত টাকা ৮২ লাখ ৯ হাজার ৯১৩ টাকা। বন্ড, ঋণপত্র ও কোম্পানি শেয়ার আছে ২৩ লাখ ৯৭ হাজার ৭০০ টাকার। স্থায়ী আমানতে বিনিয়োগ আছে ২ কোটি ১১ লাখ তিন হাজার ৬৭১ টাকা।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তার স্থাবর সম্পদ বিবরণীতে দেখিয়েছেন, তারা কৃষি জমি আছে ১৭১ শতাংশ। যার অর্জনকালীন মূল্য ১ কোটি ৬১ লাখ এক হাজার ৮৫০ টাকা। অকৃষি জমি আছে ১৮ দশমিক ৫ শতাংশ। যার অর্জনকালীন মূল্য ৫৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা। এছাড়া বাড়ির আর্থিক মূল্য ৯২ লাখ ৯৭ হাজার ৭০০ টাকা।