ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইতালিতে ২ ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষ

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০১:৪৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩
  • 74

ইতালির উত্তরাঞ্চলে দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়েছে। তবে গতি কম থাকায় বড় কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। কেবল ১৭ জন আরোহী সামান্য আহত হয়েছেন। রোববার (১০ ডিসেম্বর) রাতে দেশটির বোলোগনা ও রিমিনি শহরের মধ্যকার রেললাইনে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে, এদিন ফেনজা ও ফোর্লি এলাকার মাঝামঝি একটি উচ্চগতির ট্রেন এবং একটি আঞ্চলিক ট্রেনের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে অন্তত ১৭ জন আহত হয়েছেন।

তবে জাতীয় ট্রেন অপারেটর ট্রেনইটালিয়ার এক মুখপাত্র বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, আহতরা ‘সামান্য আঘাত’ পেয়েছেন, বেশিরভাগই কাঁটাছেঁড়ার মতো ক্ষত। তিনি জানান, এটি খুবই কম গতির সংঘর্ষ ছিল। ঘটনার তদন্ত চলছে।

ফায়ার সার্ভিস প্রকাশিত ছবিতে দেখা যায়, মুখোমুখি সংঘর্ষে উচ্চগতির ট্রেনের মাথা দুমড়েমুচড়ে গেলেও আঞ্চলিক ট্রেনটি অক্ষত রয়েছে।

ইতালির উপপ্রধানমন্ত্রী ও পরিবহনমন্ত্রী মাত্তেও সালভিনি জানিয়েছেন, তিনি ঘটনাটির ওপর নজর রাখছেন। কী ঘটেছে সে বিষয়ে আরও তথ্য এবং দায়ীদের সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন সালভিনি।

এই ঘটনার মাত্র তিন মাস আগেই ইতালিতে ট্রেনের ধাক্কায় পাঁচজন রেলওয়ে কর্মী প্রাণ হারিয়েছিলেন। গত ৩১ আগস্ট রাতে মিলান-তুরিন রেললাইনে সংস্কার কাজের সময় দুর্ঘটনার কবলে পড়েন তারা।

ইউরোপীয় দেশটিতে এর আগে প্রাণঘাতী রেল দুর্ঘটনা ঘটেছিল ২০২০ সালে। সেই সময় মিলানের দক্ষিণে লোদি এলাকায় একটি ট্রেন লাইনচ্যুত হলে দুই রেলওয়ে কর্মী নিহত এবং ৩১ যাত্রী আহত হন।

তার আগে ২০১৮ সালে মিলানের কাছেই একটি ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে তিন নারী নিহত এবং আরও প্রায় ১০০ যাত্রী আহত হয়েছিলেন। ওই দুর্ঘটনার জন্য দুর্বল রক্ষণাবেক্ষণকে দায়ী করা হয়।

ট্যাগস

ইতালিতে ২ ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষ

আপডেট সময় ০১:৪৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩

ইতালির উত্তরাঞ্চলে দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়েছে। তবে গতি কম থাকায় বড় কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। কেবল ১৭ জন আরোহী সামান্য আহত হয়েছেন। রোববার (১০ ডিসেম্বর) রাতে দেশটির বোলোগনা ও রিমিনি শহরের মধ্যকার রেললাইনে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে, এদিন ফেনজা ও ফোর্লি এলাকার মাঝামঝি একটি উচ্চগতির ট্রেন এবং একটি আঞ্চলিক ট্রেনের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে অন্তত ১৭ জন আহত হয়েছেন।

তবে জাতীয় ট্রেন অপারেটর ট্রেনইটালিয়ার এক মুখপাত্র বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, আহতরা ‘সামান্য আঘাত’ পেয়েছেন, বেশিরভাগই কাঁটাছেঁড়ার মতো ক্ষত। তিনি জানান, এটি খুবই কম গতির সংঘর্ষ ছিল। ঘটনার তদন্ত চলছে।

ফায়ার সার্ভিস প্রকাশিত ছবিতে দেখা যায়, মুখোমুখি সংঘর্ষে উচ্চগতির ট্রেনের মাথা দুমড়েমুচড়ে গেলেও আঞ্চলিক ট্রেনটি অক্ষত রয়েছে।

ইতালির উপপ্রধানমন্ত্রী ও পরিবহনমন্ত্রী মাত্তেও সালভিনি জানিয়েছেন, তিনি ঘটনাটির ওপর নজর রাখছেন। কী ঘটেছে সে বিষয়ে আরও তথ্য এবং দায়ীদের সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন সালভিনি।

এই ঘটনার মাত্র তিন মাস আগেই ইতালিতে ট্রেনের ধাক্কায় পাঁচজন রেলওয়ে কর্মী প্রাণ হারিয়েছিলেন। গত ৩১ আগস্ট রাতে মিলান-তুরিন রেললাইনে সংস্কার কাজের সময় দুর্ঘটনার কবলে পড়েন তারা।

ইউরোপীয় দেশটিতে এর আগে প্রাণঘাতী রেল দুর্ঘটনা ঘটেছিল ২০২০ সালে। সেই সময় মিলানের দক্ষিণে লোদি এলাকায় একটি ট্রেন লাইনচ্যুত হলে দুই রেলওয়ে কর্মী নিহত এবং ৩১ যাত্রী আহত হন।

তার আগে ২০১৮ সালে মিলানের কাছেই একটি ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে তিন নারী নিহত এবং আরও প্রায় ১০০ যাত্রী আহত হয়েছিলেন। ওই দুর্ঘটনার জন্য দুর্বল রক্ষণাবেক্ষণকে দায়ী করা হয়।