ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঘরোয়া পদ্ধতিতে ত্বকের যত্ন শীতকালে

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৭:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০২৩
  • 87

সারা বছর আমাদের ত্বকের যত্ন নিতে হয়। তবে শীতকালে সাধারণ যত্ন নিলে চলে না, নিতে হয় বাড়তি যত্ন। এমনিতে ঠান্ডা আবহাওয়া, তার ওপর বাতাসে আর্দ্রতা কম বলে শীতকালে আমাদের ত্বক নাজুক হয়ে পড়ে। ত্বক শুষ্ক হয়ে ফেটে যায়, হয়ে পড়ে রুক্ষ। চিন্তার কিছু নেই। ঘরোয়া পদ্ধিতিতে সহজেই এসব সমস্যা দূর করা যায়। চলুন দেখে নেই কীভাবে।

তৈলাক্ত ত্বকের যত্নে শসা

যাদের ত্বক তৈলাক্ত তারা শসার রস ব্যবহার করতে পারেন। শশার রসে মুলতানি মাটি এবং চন্দনের গুঁড়া দিন। চামচ দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। পেস্টটি মুখে, হাত ও পায়ের ত্বকে লাগান। শুকিয়ে যাওয়ার ১০ মিনিট পর সাধারণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ত্বকের তৈলাক্ততা কেটে উজ্জ্বলতা ফিরে আসবে।

ত্বকের পোড়া ভাব কাটাবে পেঁপে

পাকা পেঁপে সংগ্রহ করুন। দুই টেবিল চামচ পেঁপে একটি বাটিতে নিয়ে পেস্ট বানান। পেস্টটা ১৫ থেকে ২০ মিনিট মুখের ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। সময় শেষ হলে স্বাভাবিক পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দিনে দুইবার, এক সপ্তাহ এভাবে পেঁপে ব্যবহার করলে রোদে পোড়া দাগ দূর হবে।

ত্বকের যত্নে কলা, মধু ও টম্যাটো

ত্বকের যত্নে দারুণ কাজ করে কলা, মধু ও টম্যাটো। শীতকালে ত্বকের যত্নে এই উপাদানগুলো ব্যবহার করা যায়। কলা পেস্ট করুন। তাতে সামান্য মধু দিয়ে ত্বকে লাগান। শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে। এ ছাড়া টম্যাটোর রসের সঙ্গে মধু মিশিয়ে একই নিয়মে লাগালেও ত্বকের আর্দ্রতা বাড়বে এবং উজ্জ্বল দেখাবে।

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায় দুধের ক্রিম ও টকদই

সব ধরনের ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে কাজ করে দুধ ও টকদই। ব্যবহার প্রণালিও খুব সহজ। দুধের ক্রিম অথবা টকদইয়ে কয়েক ফোঁটা গোলাপজল মেশান। চামচ দিয়ে ভালো করে নেড়ে নিন। মিশ্রণটি ব্যবহারের আগে পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট মিশ্রণটি মুখের ত্বকে রেখে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে উজ্জ্বলতা ফিরে পাবেন।

গাজরের পেস্টে ফিরবে ত্বকের কোমলতা

শীতের আর্দ্রতায় ত্বক তার কোমলতা হারিয়ে ফেলে। এ সময়ে কাজে আসে গাজর। ব্যবহার প্রণালিও খুব সহজ। কচি গাজর পেস্ট করে তাতে সামান্য চন্দন দিন। মিশ্রণটি ত্বকে লাগিয়ে রাখুন ১০ মিনিট পর্যন্ত। সময় শেষ হলে হালকা ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে ত্বকের কোমলতা ফিরে পাবেন।

নারকেল তেলও উজ্জ্বলতা বাড়াতে কাজ করে

শীতকালে উজ্জ্বলতা হারানো ত্বকে উজ্জ্বলতা ফেরাতে দারুণ কাজ করে নারকেল তেল। সে জন্য মুখে নারকেল তেল লাগান। কুসুম গরম পানিতে সুতির রুমাল ভিজিয়ে নিংড়ে নিন। রুমালটা মুখের ওপরে দিয়ে রাখুন। ১০ মিনিট পর মুখটা ধুয়ে গোলাপজল লাগিয়ে নিন। সব ধরনের ত্বকে উজ্জ্বলতা ফেরাতে এটা কাজ করে।

ট্যাগস

ঘরোয়া পদ্ধতিতে ত্বকের যত্ন শীতকালে

আপডেট সময় ০৭:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০২৩

সারা বছর আমাদের ত্বকের যত্ন নিতে হয়। তবে শীতকালে সাধারণ যত্ন নিলে চলে না, নিতে হয় বাড়তি যত্ন। এমনিতে ঠান্ডা আবহাওয়া, তার ওপর বাতাসে আর্দ্রতা কম বলে শীতকালে আমাদের ত্বক নাজুক হয়ে পড়ে। ত্বক শুষ্ক হয়ে ফেটে যায়, হয়ে পড়ে রুক্ষ। চিন্তার কিছু নেই। ঘরোয়া পদ্ধিতিতে সহজেই এসব সমস্যা দূর করা যায়। চলুন দেখে নেই কীভাবে।

তৈলাক্ত ত্বকের যত্নে শসা

যাদের ত্বক তৈলাক্ত তারা শসার রস ব্যবহার করতে পারেন। শশার রসে মুলতানি মাটি এবং চন্দনের গুঁড়া দিন। চামচ দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। পেস্টটি মুখে, হাত ও পায়ের ত্বকে লাগান। শুকিয়ে যাওয়ার ১০ মিনিট পর সাধারণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ত্বকের তৈলাক্ততা কেটে উজ্জ্বলতা ফিরে আসবে।

ত্বকের পোড়া ভাব কাটাবে পেঁপে

পাকা পেঁপে সংগ্রহ করুন। দুই টেবিল চামচ পেঁপে একটি বাটিতে নিয়ে পেস্ট বানান। পেস্টটা ১৫ থেকে ২০ মিনিট মুখের ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। সময় শেষ হলে স্বাভাবিক পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দিনে দুইবার, এক সপ্তাহ এভাবে পেঁপে ব্যবহার করলে রোদে পোড়া দাগ দূর হবে।

ত্বকের যত্নে কলা, মধু ও টম্যাটো

ত্বকের যত্নে দারুণ কাজ করে কলা, মধু ও টম্যাটো। শীতকালে ত্বকের যত্নে এই উপাদানগুলো ব্যবহার করা যায়। কলা পেস্ট করুন। তাতে সামান্য মধু দিয়ে ত্বকে লাগান। শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে। এ ছাড়া টম্যাটোর রসের সঙ্গে মধু মিশিয়ে একই নিয়মে লাগালেও ত্বকের আর্দ্রতা বাড়বে এবং উজ্জ্বল দেখাবে।

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায় দুধের ক্রিম ও টকদই

সব ধরনের ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে কাজ করে দুধ ও টকদই। ব্যবহার প্রণালিও খুব সহজ। দুধের ক্রিম অথবা টকদইয়ে কয়েক ফোঁটা গোলাপজল মেশান। চামচ দিয়ে ভালো করে নেড়ে নিন। মিশ্রণটি ব্যবহারের আগে পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট মিশ্রণটি মুখের ত্বকে রেখে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে উজ্জ্বলতা ফিরে পাবেন।

গাজরের পেস্টে ফিরবে ত্বকের কোমলতা

শীতের আর্দ্রতায় ত্বক তার কোমলতা হারিয়ে ফেলে। এ সময়ে কাজে আসে গাজর। ব্যবহার প্রণালিও খুব সহজ। কচি গাজর পেস্ট করে তাতে সামান্য চন্দন দিন। মিশ্রণটি ত্বকে লাগিয়ে রাখুন ১০ মিনিট পর্যন্ত। সময় শেষ হলে হালকা ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে ত্বকের কোমলতা ফিরে পাবেন।

নারকেল তেলও উজ্জ্বলতা বাড়াতে কাজ করে

শীতকালে উজ্জ্বলতা হারানো ত্বকে উজ্জ্বলতা ফেরাতে দারুণ কাজ করে নারকেল তেল। সে জন্য মুখে নারকেল তেল লাগান। কুসুম গরম পানিতে সুতির রুমাল ভিজিয়ে নিংড়ে নিন। রুমালটা মুখের ওপরে দিয়ে রাখুন। ১০ মিনিট পর মুখটা ধুয়ে গোলাপজল লাগিয়ে নিন। সব ধরনের ত্বকে উজ্জ্বলতা ফেরাতে এটা কাজ করে।