ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বেনাপোল এক্সপ্রেসের রাত ৯টার দিকে আগুন দেয়

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৪:১৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ জানুয়ারী ২০২৪
  • 55

রাজধানী ঢাকার গোপীবাগে শুক্রবার রাত ৯টার দিকে বেনাপোল এক্সপ্রেস ট্রেনে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় চারজন নিহত এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

জাতীয় নির্বাচনের প্রাক্কালে ভয়াবহ এই অগ্নিসন্ত্রাসের খবর শুধু বাংলাদেশের গণমাধ্যমে নয়, ফলাও করে প্রচার হয়েছে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যমেও।

যাত্রীবাহী ট্রেনে ভয়াবহ এই নাশকতার খবর এপি, আলজাজিরা, এনডিটিভি, সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট, ডন, হিন্দুস্তান টাইমস, কুয়েত টাইমস, আল অ্যারাবিয়া নিউজ, স্কাই নিউজ, এবিসি নিউজসহ প্রধান প্রধান বার্তা সংস্থা ও সংবাদমাধ্যমে এসেছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস ‘উত্তেজনাপূর্ণ রোববার নির্বাচনের আগে বাংলাদেশে ট্রেনে অগ্নিসংযোগে ৪ জন নিহত’ শিরোনামে প্রতিবেদন করেছে। এপির প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশের রাজধানীতে একটি ট্রেনে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় শুক্রবার গভীর রাতে চারজন নিহত হয়েছেন। বিরোধী দলগুলো নির্বাচন বয়কট করেছে এবং তারা হরতাল দিয়ে নির্বাচন ব্যাহত করার চেষ্টা করছে।

এপির খবরে আরও বলা হয়, নির্বাচনের আগে মানুষকে ভয় দেখানোর লক্ষ্যে এটি ‘স্পষ্টতই একটি নাশকতার কাজ’ বলে জানিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। সন্দেহভাজন হিসেবে কোনো রাজনৈতিক দল বা গোষ্ঠীর নাম ডিএমপি বলেনি, তবে দায়ীদের দ্রুত খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনার ঘোষণা দিয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, মেগাসিটির প্রধান রেল টার্মিনালের কাছে ঢাকার পুরোনো অংশের গোপীবাগে ট্রেনটিতে আগুন লাগে। বাংলাদেশের ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্বৃতি দিয়ে খবরে বলা হয়, ট্রেনের চারটি বগিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় অন্তত পাঁচজন নিহত ও বেশ কয়েকজন দগ্ধ হয়েছেন।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের সংবাদমাধ্যম গালফ নিউজের খবরে বলা হয়, শুক্রবার একটি যাত্রীবাহী ট্রেনে আগুন লাগার পর বাংলাদেশে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। দেশটিতে নির্বাচনের আগে যাত্রীবাহী ট্রেনে এমন আগুন লাগার ঘটনা নাশকতাই মনে হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের এবিসি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশে নির্বাচনের সময় সহিংসতার ইতিহাস রয়েছে। দেশটিতে আগামী ৭ জানুয়ারি জাতীয় নির্বাচনের আগে ট্রেনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এতে সাধারণ মানুষের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে। গত ১৮ ডিসেম্বর বাংলাদেশে আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু হওয়ার পর থেকে রাজনৈতিক সহিংসতায় কমপক্ষে তিনজন নিহত হয়েছে। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন আন্তর্জাতিক মনোযোগ আকর্ষণ করেছে।

ট্যাগস

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বেনাপোল এক্সপ্রেসের রাত ৯টার দিকে আগুন দেয়

আপডেট সময় ০৪:১৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ জানুয়ারী ২০২৪

রাজধানী ঢাকার গোপীবাগে শুক্রবার রাত ৯টার দিকে বেনাপোল এক্সপ্রেস ট্রেনে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় চারজন নিহত এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

জাতীয় নির্বাচনের প্রাক্কালে ভয়াবহ এই অগ্নিসন্ত্রাসের খবর শুধু বাংলাদেশের গণমাধ্যমে নয়, ফলাও করে প্রচার হয়েছে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যমেও।

যাত্রীবাহী ট্রেনে ভয়াবহ এই নাশকতার খবর এপি, আলজাজিরা, এনডিটিভি, সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট, ডন, হিন্দুস্তান টাইমস, কুয়েত টাইমস, আল অ্যারাবিয়া নিউজ, স্কাই নিউজ, এবিসি নিউজসহ প্রধান প্রধান বার্তা সংস্থা ও সংবাদমাধ্যমে এসেছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস ‘উত্তেজনাপূর্ণ রোববার নির্বাচনের আগে বাংলাদেশে ট্রেনে অগ্নিসংযোগে ৪ জন নিহত’ শিরোনামে প্রতিবেদন করেছে। এপির প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশের রাজধানীতে একটি ট্রেনে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় শুক্রবার গভীর রাতে চারজন নিহত হয়েছেন। বিরোধী দলগুলো নির্বাচন বয়কট করেছে এবং তারা হরতাল দিয়ে নির্বাচন ব্যাহত করার চেষ্টা করছে।

এপির খবরে আরও বলা হয়, নির্বাচনের আগে মানুষকে ভয় দেখানোর লক্ষ্যে এটি ‘স্পষ্টতই একটি নাশকতার কাজ’ বলে জানিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। সন্দেহভাজন হিসেবে কোনো রাজনৈতিক দল বা গোষ্ঠীর নাম ডিএমপি বলেনি, তবে দায়ীদের দ্রুত খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনার ঘোষণা দিয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, মেগাসিটির প্রধান রেল টার্মিনালের কাছে ঢাকার পুরোনো অংশের গোপীবাগে ট্রেনটিতে আগুন লাগে। বাংলাদেশের ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্বৃতি দিয়ে খবরে বলা হয়, ট্রেনের চারটি বগিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় অন্তত পাঁচজন নিহত ও বেশ কয়েকজন দগ্ধ হয়েছেন।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের সংবাদমাধ্যম গালফ নিউজের খবরে বলা হয়, শুক্রবার একটি যাত্রীবাহী ট্রেনে আগুন লাগার পর বাংলাদেশে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। দেশটিতে নির্বাচনের আগে যাত্রীবাহী ট্রেনে এমন আগুন লাগার ঘটনা নাশকতাই মনে হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের এবিসি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশে নির্বাচনের সময় সহিংসতার ইতিহাস রয়েছে। দেশটিতে আগামী ৭ জানুয়ারি জাতীয় নির্বাচনের আগে ট্রেনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এতে সাধারণ মানুষের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে। গত ১৮ ডিসেম্বর বাংলাদেশে আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু হওয়ার পর থেকে রাজনৈতিক সহিংসতায় কমপক্ষে তিনজন নিহত হয়েছে। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন আন্তর্জাতিক মনোযোগ আকর্ষণ করেছে।