ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আর্জেন্টিনার জাতীয় উদ্যানে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ১২:২০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৪
  • 49

আর্জেন্টিনার প্যাটাগোনিয়ার লস অ্যালারেস জাতীয় উদ্যানের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে। ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থানের (ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইট) তালিকায় থাকা লস অ্যালারেস জাতীয় উদ্যানে শনিবার (২৭ জানুয়ারি) লাগা আগুনে ইতিমধ্যে ৬০০ হেক্টর (১ হাজার ৫০০ একর) বনাঞ্চল পুড়ে গেছে।

রোববার (২৮) জানুয়ারি এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, লস অ্যালারেস জাতীয় উদ্যানে লাগা ভয়াবহ আগুন কাছাকাছি দুটি শহরে ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে দেশটির দমকল বাহিনী।

উদ্যানটির ফায়ার, কমিউনিকেশনস অ্যান্ড ইমার্জেন্সি বিভাগের প্রধান মারিও কার্ডেনাস জানিয়েছেন, আগুন নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে। সবকিছুই প্রতিকূলে অবস্থান করছে। প্রচুর বাতাস ও উচ্চ তাপমাত্রা বিরাজ করছে। যার কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার কাজ ঠিক মতো করা যাচ্ছে না।

আর্জেন্টিনার সুদূর দক্ষিণে অবস্থিত প্যাটাগোনিয়া প্রদেশ সাধারণত শীতল ও বাতাসযুক্ত অঞ্চল। তবে দক্ষিণ গোলার্ধের গ্রীষ্মে তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে যাওয়ায় প্যাটাগোনিয়া ও চুবুত প্রদেশে আগামী এপ্রিল পর্যন্ত আগুনের ঝুঁকির জরুরি সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

এনডিটিভি জানিয়েছে, বুয়েনস আইরেসের দক্ষিণ-পশ্চিমে প্রায় ২০০০ কিলোমিটার দূরে এসকুয়েল ও ট্রেভেলিন শহরে যাতে আগুন ছড়িয়ে পরতে না পারে সেই চেষ্টা করছেন চুবুত প্রদেশের উদ্ধারকর্মীরা।

নদী ও হ্রদে ঘেরা লস অ্যালারস জাতীয় উদ্যানে অ্যালারস গাছের আদিম বন রয়েছে, যা বিশ্বের দ্বিতীয় দীর্ঘতম জীবন্ত গাছের প্রজাতি।

ট্যাগস

আর্জেন্টিনার জাতীয় উদ্যানে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড

আপডেট সময় ১২:২০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৪

আর্জেন্টিনার প্যাটাগোনিয়ার লস অ্যালারেস জাতীয় উদ্যানের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে। ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থানের (ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইট) তালিকায় থাকা লস অ্যালারেস জাতীয় উদ্যানে শনিবার (২৭ জানুয়ারি) লাগা আগুনে ইতিমধ্যে ৬০০ হেক্টর (১ হাজার ৫০০ একর) বনাঞ্চল পুড়ে গেছে।

রোববার (২৮) জানুয়ারি এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, লস অ্যালারেস জাতীয় উদ্যানে লাগা ভয়াবহ আগুন কাছাকাছি দুটি শহরে ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে দেশটির দমকল বাহিনী।

উদ্যানটির ফায়ার, কমিউনিকেশনস অ্যান্ড ইমার্জেন্সি বিভাগের প্রধান মারিও কার্ডেনাস জানিয়েছেন, আগুন নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে। সবকিছুই প্রতিকূলে অবস্থান করছে। প্রচুর বাতাস ও উচ্চ তাপমাত্রা বিরাজ করছে। যার কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার কাজ ঠিক মতো করা যাচ্ছে না।

আর্জেন্টিনার সুদূর দক্ষিণে অবস্থিত প্যাটাগোনিয়া প্রদেশ সাধারণত শীতল ও বাতাসযুক্ত অঞ্চল। তবে দক্ষিণ গোলার্ধের গ্রীষ্মে তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে যাওয়ায় প্যাটাগোনিয়া ও চুবুত প্রদেশে আগামী এপ্রিল পর্যন্ত আগুনের ঝুঁকির জরুরি সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

এনডিটিভি জানিয়েছে, বুয়েনস আইরেসের দক্ষিণ-পশ্চিমে প্রায় ২০০০ কিলোমিটার দূরে এসকুয়েল ও ট্রেভেলিন শহরে যাতে আগুন ছড়িয়ে পরতে না পারে সেই চেষ্টা করছেন চুবুত প্রদেশের উদ্ধারকর্মীরা।

নদী ও হ্রদে ঘেরা লস অ্যালারস জাতীয় উদ্যানে অ্যালারস গাছের আদিম বন রয়েছে, যা বিশ্বের দ্বিতীয় দীর্ঘতম জীবন্ত গাছের প্রজাতি।