ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এ অঞ্চল থেকে ১০ কোটি টাকার মধু সংগ্রহ হবে আশা করে মৌয়ালরা

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ১২:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৪
  • 92

রাজবাড়ী জেলায় বিভিন্ন কৃষি মাঠে সরিষা ফুলের মাঠে বাণিজ্যিকভাবে মধু চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন মৌচাষিরা। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এসে তারা রাজবাড়ীর বিভিন্ন স্থানে মৌমাছির বাক্সসহ অবস্থান নিয়েছেন।

গুগল নিউজে ফলো করুন আরটিভি অনলাইন
তারা সরিষা খেতের আইলে শতশত কৃত্রিম মৌবাক্স স্থাপন করেছে। মৌয়ালরা মৌমাছি আকর্ষণের জন্য রানি মৌমাছি প্রতিটি বাক্সে ঢুকিয়ে দিয়েছে। আর তাতেই প্রতিদিন হাজার হাজার মৌমাছি ফুলে ফুলে ঘুরে মধু সংগ্রহ করে ওইসব কৃত্রিম মৌবাক্সে জমা করছে।

চলতি মৌসুমে এ অঞ্চল থেকে ১০ কোটি টাকার মধু সংগ্রহ হবে বলে আশা করছেন মৌয়ালরা।

জানা গেছে, পদ্মা বিধৌত রাজবাড়ী সদর, গোয়ালন্দ, পাংশা, কালুখালি ও বালিয়াকান্দি উপজেলায় গত দুই দশক ধরে রবি মৌসুমে সরিষা ফুল থেকে কোটি কোটি টাকার মধু সংগ্রহ করা হচ্ছে।

এবার জেলার বিভিন্ন মাঠে প্রায় শতাধিক চাষি মধু সংগ্রহের জন্য রাজবাড়ীর সরিষা খেতের পাশে প্রায় ২ হাজার মৌবাক্স বসিয়েছেন।

কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে রাজবাড়ীর ৫ উপজেলায় ২০ হাজার হেক্টর জমিতে বিভিন্ন জাতের সরিষার চাষ হয়েছে। এরই মধ্যে রাজবাড়ীর ফসলের মাঠ সরিষার ফুলে ভরে উঠেছে। আর সরিষা ফুলের মধু সংগ্রহের জন্য মাসখানেক আগে থেকেই চাষিরা সরিষা মাঠের বিভিন্ন সুবিধাজনক স্থানে অস্থায়ী আবাস গড়েছেন। খেতের আইলজুড়ে মৌবাক্স বসিয়েছেন।

রাজবাড়ী সদরের উপসহকারী কৃষি অফিসার মো. সুমন মিয়া ও ইলিয়াস হোসেন জানান, চলতি বছর রাজবাড়ীতে বিপুল পরিমাণ জমিতে বিভিন্ন উন্নত জাতের সরিষার আবাদ হয়েছে। ফলে প্রচুর মধু উৎপাদন করছেন মৌয়ালরা। এলাকার অনেক শিক্ষিত বেকার যুবকরাও সরিষার মধু সংগ্রহের কাজ করছেন। আর তাতে কৃষি বিভাগ সার্বিক সহায়তা করছে, পরামর্শ দিচ্ছেন চাষিদের।

রাজবাড়ী মৌচাষি সমিতির সভাপতি সূর্যনগরের সজল মিয়া জানান, চলতি মৌসুমে এ জেলা থেকে ১ হাজার টনের বেশি মধু উৎপাদন হবে। যার বাজার মূল্য ১০ কোটি টাকা।

তিনি জানান, তার মোট ৫০টি মৌবাক্স রয়েছে। যা থেকে তিনি প্রতি সপ্তাহে প্রায় ৪ মণ মধু সংগ্রহ করতে পারেন।

সাতক্ষীরা থেকে মধু সংগ্রহ করতে আসা মেহেদী হাসান জানান, তার ১৫০টি মৌবাক্স রয়েছে। যা থেকে প্রতি সপ্তাহে মধু উৎপাদন হচ্ছে ৫ থেকে ৬ মণ। এবার মধুর দাম বেশি। ফলে চাষিরা লাভবান হবেন।

স্বল্প সময়ে অল্প পরিশ্রমে মধু চাষে অধিক লাভ দেখে মেহেদীর মতো রাজবাড়ী সদরের মুলঘর ইউনিয়নে অনেকে বিভিন্ন মাঠে সরিষা খেতে মৌসুমী মৌবাক্স বসিয়েছে।

রাজবাড়ী সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো. জনি খান জানান, আবহাওয়া অনুকূল থাকলে চলতি মৌসুমে রাজবাড়ী জেলায় থেকে বাণিজ্যিকভাবে প্রায় ১ হাজার টন মধু সংগৃহীত হবে। যার বাজারমূল্য প্রায় ১০ কোটি টাকা।

ট্যাগস

এ অঞ্চল থেকে ১০ কোটি টাকার মধু সংগ্রহ হবে আশা করে মৌয়ালরা

আপডেট সময় ১২:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৪

রাজবাড়ী জেলায় বিভিন্ন কৃষি মাঠে সরিষা ফুলের মাঠে বাণিজ্যিকভাবে মধু চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন মৌচাষিরা। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এসে তারা রাজবাড়ীর বিভিন্ন স্থানে মৌমাছির বাক্সসহ অবস্থান নিয়েছেন।

গুগল নিউজে ফলো করুন আরটিভি অনলাইন
তারা সরিষা খেতের আইলে শতশত কৃত্রিম মৌবাক্স স্থাপন করেছে। মৌয়ালরা মৌমাছি আকর্ষণের জন্য রানি মৌমাছি প্রতিটি বাক্সে ঢুকিয়ে দিয়েছে। আর তাতেই প্রতিদিন হাজার হাজার মৌমাছি ফুলে ফুলে ঘুরে মধু সংগ্রহ করে ওইসব কৃত্রিম মৌবাক্সে জমা করছে।

চলতি মৌসুমে এ অঞ্চল থেকে ১০ কোটি টাকার মধু সংগ্রহ হবে বলে আশা করছেন মৌয়ালরা।

জানা গেছে, পদ্মা বিধৌত রাজবাড়ী সদর, গোয়ালন্দ, পাংশা, কালুখালি ও বালিয়াকান্দি উপজেলায় গত দুই দশক ধরে রবি মৌসুমে সরিষা ফুল থেকে কোটি কোটি টাকার মধু সংগ্রহ করা হচ্ছে।

এবার জেলার বিভিন্ন মাঠে প্রায় শতাধিক চাষি মধু সংগ্রহের জন্য রাজবাড়ীর সরিষা খেতের পাশে প্রায় ২ হাজার মৌবাক্স বসিয়েছেন।

কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে রাজবাড়ীর ৫ উপজেলায় ২০ হাজার হেক্টর জমিতে বিভিন্ন জাতের সরিষার চাষ হয়েছে। এরই মধ্যে রাজবাড়ীর ফসলের মাঠ সরিষার ফুলে ভরে উঠেছে। আর সরিষা ফুলের মধু সংগ্রহের জন্য মাসখানেক আগে থেকেই চাষিরা সরিষা মাঠের বিভিন্ন সুবিধাজনক স্থানে অস্থায়ী আবাস গড়েছেন। খেতের আইলজুড়ে মৌবাক্স বসিয়েছেন।

রাজবাড়ী সদরের উপসহকারী কৃষি অফিসার মো. সুমন মিয়া ও ইলিয়াস হোসেন জানান, চলতি বছর রাজবাড়ীতে বিপুল পরিমাণ জমিতে বিভিন্ন উন্নত জাতের সরিষার আবাদ হয়েছে। ফলে প্রচুর মধু উৎপাদন করছেন মৌয়ালরা। এলাকার অনেক শিক্ষিত বেকার যুবকরাও সরিষার মধু সংগ্রহের কাজ করছেন। আর তাতে কৃষি বিভাগ সার্বিক সহায়তা করছে, পরামর্শ দিচ্ছেন চাষিদের।

রাজবাড়ী মৌচাষি সমিতির সভাপতি সূর্যনগরের সজল মিয়া জানান, চলতি মৌসুমে এ জেলা থেকে ১ হাজার টনের বেশি মধু উৎপাদন হবে। যার বাজার মূল্য ১০ কোটি টাকা।

তিনি জানান, তার মোট ৫০টি মৌবাক্স রয়েছে। যা থেকে তিনি প্রতি সপ্তাহে প্রায় ৪ মণ মধু সংগ্রহ করতে পারেন।

সাতক্ষীরা থেকে মধু সংগ্রহ করতে আসা মেহেদী হাসান জানান, তার ১৫০টি মৌবাক্স রয়েছে। যা থেকে প্রতি সপ্তাহে মধু উৎপাদন হচ্ছে ৫ থেকে ৬ মণ। এবার মধুর দাম বেশি। ফলে চাষিরা লাভবান হবেন।

স্বল্প সময়ে অল্প পরিশ্রমে মধু চাষে অধিক লাভ দেখে মেহেদীর মতো রাজবাড়ী সদরের মুলঘর ইউনিয়নে অনেকে বিভিন্ন মাঠে সরিষা খেতে মৌসুমী মৌবাক্স বসিয়েছে।

রাজবাড়ী সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো. জনি খান জানান, আবহাওয়া অনুকূল থাকলে চলতি মৌসুমে রাজবাড়ী জেলায় থেকে বাণিজ্যিকভাবে প্রায় ১ হাজার টন মধু সংগৃহীত হবে। যার বাজারমূল্য প্রায় ১০ কোটি টাকা।