ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মাহাথির মোহাম্মদকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৫:২২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • 42

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদকে আবারও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি ইনফেকশনে ভুগছেন বলা জানা গেছে। তাকে দেশটির ন্যাশনাল হার্ট ইনস্টিটিউটে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

মঙ্গলবার মাহাথিরের মুখপাত্র তার অসুস্থতার কথা নিশ্চিত করেন। তবে তিনি কী ধরনের সংক্রমণে ভুগছেন সেটা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

আধুনিক মালয়েশিয়ার জনক ৯৮ বছর বয়সী মাহাথির দীর্ঘদিন ধরে হার্টের জটিলতায় ভুগছেন। তাকে হার্টে বাইপাস করা হয়েছে। গত কয়েক বছর ধরে তাকে হাসপাতালে আনা নেওয়ার মধ্যেই রাখা হয়েছে।

দুই দশকের দুর্দান্ত প্রতাপশালী এই শাসকের মঙ্গলবার একটি মামলায় কোর্টে হাজির হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু অসুস্থতার কারণে তিনি যেতে পারেননি। সবশেষ গত ২৬ জানুয়ারি মাহাথিরকে মালয়েশিয়ার ন্যাশনাল হার্ট ইন্সটিটিউটে ভর্তি করা হয়।

২০২৩ সাল পর্যন্ত মাহাথির মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে টানা ২২ বছর ছিলেন। পরে ২০১৮ সালের নির্বাচনে তিনি আবারো নির্বাচিত হন। তখন ৯২ বছর বয়সে সংস্কারবাদী জোটের প্রধান হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেন তিনি। কিন্তু রাজনৈতিক অন্তর্দ্বন্দ্বের কারণে দুই বছরও টিকতে পারেনি তার সরকার।

ট্যাগস

মাহাথির মোহাম্মদকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে

আপডেট সময় ০৫:২২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদকে আবারও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি ইনফেকশনে ভুগছেন বলা জানা গেছে। তাকে দেশটির ন্যাশনাল হার্ট ইনস্টিটিউটে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

মঙ্গলবার মাহাথিরের মুখপাত্র তার অসুস্থতার কথা নিশ্চিত করেন। তবে তিনি কী ধরনের সংক্রমণে ভুগছেন সেটা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

আধুনিক মালয়েশিয়ার জনক ৯৮ বছর বয়সী মাহাথির দীর্ঘদিন ধরে হার্টের জটিলতায় ভুগছেন। তাকে হার্টে বাইপাস করা হয়েছে। গত কয়েক বছর ধরে তাকে হাসপাতালে আনা নেওয়ার মধ্যেই রাখা হয়েছে।

দুই দশকের দুর্দান্ত প্রতাপশালী এই শাসকের মঙ্গলবার একটি মামলায় কোর্টে হাজির হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু অসুস্থতার কারণে তিনি যেতে পারেননি। সবশেষ গত ২৬ জানুয়ারি মাহাথিরকে মালয়েশিয়ার ন্যাশনাল হার্ট ইন্সটিটিউটে ভর্তি করা হয়।

২০২৩ সাল পর্যন্ত মাহাথির মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে টানা ২২ বছর ছিলেন। পরে ২০১৮ সালের নির্বাচনে তিনি আবারো নির্বাচিত হন। তখন ৯২ বছর বয়সে সংস্কারবাদী জোটের প্রধান হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেন তিনি। কিন্তু রাজনৈতিক অন্তর্দ্বন্দ্বের কারণে দুই বছরও টিকতে পারেনি তার সরকার।