ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মার্চ জ্বালানি তেলের নতুন দাম নির্ধারণ করতে যাচ্ছে সরকার

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ১২:৫২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪
  • 76

চলতি মাসেই (মার্চ) জ্বালানি তেলের নতুন দাম নির্ধারণ করতে যাচ্ছে সরকার। বিশ্ববাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে দাম কিছুটা কমিয়ে বিক্রি হবে ডিজেল, অকটেন ও পেট্রোল।

জ্বালানি বিভাগ সূত্র বলছে, লিটারপ্রতি ডিজেল ও কেরোসিনের দাম চার টাকা কমানো হতে পারে। অর্থাৎ বর্তমানে ১০৯ টাকার তেল ১০৫ টাকা নির্ধারণ করা হতে পারে।

এ ছাড়া ১৩০ টাকা দরে বিক্রি হওয়া অকটেনের দাম লিটারপ্রতি ১১৫ টাকা এবং ১২৫ টাকা দরে বিক্রি হওয়া পেট্রোলের দাম ১১১ টাকা নির্ধারণ করা হতে পারে।

চলতি মাস থেকেই আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে জ্বালানি তেলের দাম নির্ধারণের নতুন পদ্ধতি বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে সরকার। মূলত, এই সমন্বয়ের পরেই জ্বালানি তেলের দাম কমার আভাস পাওয়া যাচ্ছে। বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদও এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন।

সচিবালয়ে রোববার সাংবাদিকদের তিনি বলেন, জ্বালানি তেলের স্বয়ংক্রিয় মূল্য নির্ধারণ চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে শুরু হবে। আমরা চাই প্রতি মাসে মূল্য সমন্বয় হোক। অশা করি, চলতি মাসে গ্রাহক পর্যায়ে জ্বালানি তেলের দাম কমবে।

উল্লেখ্য, ডিজেলের দাম কমলে বাস ও ট্রাক মালিকদের খরচ কমার পাশাপাশি সেচের ব্যয়ও কমবে। অকটেন ও পেট্রোলের দাম কমলে গাড়ি ও মোটরসাইকেল ব্যবহারকারীদের ব্যয় কমবে। তাই ডিজেলের দাম কমলে পরিবহন ভাড়াও সমন্বয় করা হতে পারে।

ট্যাগস

মার্চ জ্বালানি তেলের নতুন দাম নির্ধারণ করতে যাচ্ছে সরকার

আপডেট সময় ১২:৫২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪

চলতি মাসেই (মার্চ) জ্বালানি তেলের নতুন দাম নির্ধারণ করতে যাচ্ছে সরকার। বিশ্ববাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে দাম কিছুটা কমিয়ে বিক্রি হবে ডিজেল, অকটেন ও পেট্রোল।

জ্বালানি বিভাগ সূত্র বলছে, লিটারপ্রতি ডিজেল ও কেরোসিনের দাম চার টাকা কমানো হতে পারে। অর্থাৎ বর্তমানে ১০৯ টাকার তেল ১০৫ টাকা নির্ধারণ করা হতে পারে।

এ ছাড়া ১৩০ টাকা দরে বিক্রি হওয়া অকটেনের দাম লিটারপ্রতি ১১৫ টাকা এবং ১২৫ টাকা দরে বিক্রি হওয়া পেট্রোলের দাম ১১১ টাকা নির্ধারণ করা হতে পারে।

চলতি মাস থেকেই আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে জ্বালানি তেলের দাম নির্ধারণের নতুন পদ্ধতি বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে সরকার। মূলত, এই সমন্বয়ের পরেই জ্বালানি তেলের দাম কমার আভাস পাওয়া যাচ্ছে। বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদও এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন।

সচিবালয়ে রোববার সাংবাদিকদের তিনি বলেন, জ্বালানি তেলের স্বয়ংক্রিয় মূল্য নির্ধারণ চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে শুরু হবে। আমরা চাই প্রতি মাসে মূল্য সমন্বয় হোক। অশা করি, চলতি মাসে গ্রাহক পর্যায়ে জ্বালানি তেলের দাম কমবে।

উল্লেখ্য, ডিজেলের দাম কমলে বাস ও ট্রাক মালিকদের খরচ কমার পাশাপাশি সেচের ব্যয়ও কমবে। অকটেন ও পেট্রোলের দাম কমলে গাড়ি ও মোটরসাইকেল ব্যবহারকারীদের ব্যয় কমবে। তাই ডিজেলের দাম কমলে পরিবহন ভাড়াও সমন্বয় করা হতে পারে।