ঢাকা , রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রমজানে মক্কা মুসল্লিদের জন্য ১২ হাজারের বেশি মসজিদ প্রস্তুত রয়েছে

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৪:৫১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ মার্চ ২০২৪
  • 63

রমজানে পবিত্র মক্কা নগরীতে মুসল্লিদের জন্য ১২ হাজারের বেশি মসজিদ প্রস্তুত রয়েছে। সৌদি আরবের এই শহরটিতে ১২ হাজার ১০৪টি মসজিদে নামাজ আদায় করতে পারবেন মুসল্লিরা। এর মধ্যে ৪৬০টি মসজিদই মক্কার কেন্দ্রে অবস্থিত।

মক্কায় অবস্থিত ইসলামী বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের শাখা রমজানের আগেই বিভিন্ন মসজিদের সামগ্রিক প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। সোমবার (১১ মার্চ) দেশটির প্রথম রোজা শুরু হয়েছে।

মসজিদ এবং নারীদের নামাজের স্থানে পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পরিষ্কার করা, কার্পেট পরিষ্কার করা, সুগন্ধি দেওয়া এবং রক্ষণাবেক্ষণের কাজ ইতোমধ্যেই শেষ হয়েছে । রমজানে সবচেয়ে বেশি মানুষ ওমরাহ পালন করতে আসেন। সে কারণে মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদে এ সময় প্রচুর মুসল্লির আগমন ঘটে।

সৌদি আরবের মসজিদগুলো রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব পালন করছে ইসলামিক বিষয়ক মন্ত্রণালয়। ইতোমধ্যেই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে নির্দেশিকা জারি করেছে। মসজিদের ভেতরে ইফতার পরিবেশনের পরিবর্তে বাইরে একটি নির্দিষ্ট স্থানে আয়োজন করতে বলা হয়েছে। এতে মসজিদের ভেতরে পরিষ্কার-পরিচ্ছনতা বজায় থাকবে।

এছাড়া মসজিদের ভেতরে ক্যামেরা ব্যবহারের নিষেধাজ্ঞা আনা হয়েছে। অনেকেই নামাজের সময় ক্যামেরা দিয়ে ছবি তোলেন বা ভিডিও করেন যা নামাজের মনোযোগে ব্যাঘাত ঘটায়।

এছাড়া রমজানে তারাবির নামাজ দীর্ঘ না করতে এবং রোজাদারদের সুবিধার জন্য রোজার বিভিন্ন নিয়মকানুনের বিষয়ে খুতবা দেওয়ার জন্য ইমামদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।

সারাবিশ্বেই মুসল্লিদের কাছে রমজান মাস অত্যন্ত পবিত্র মাস। আল্লাহর সন্তুষ্টির আশায় এই মাসে মুসলিমরা সূর্য উদয় থেকে অস্ত পর্যন্ত না খেয়ে সিয়াম সাধনা করেন।

ট্যাগস

রমজানে মক্কা মুসল্লিদের জন্য ১২ হাজারের বেশি মসজিদ প্রস্তুত রয়েছে

আপডেট সময় ০৪:৫১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ মার্চ ২০২৪

রমজানে পবিত্র মক্কা নগরীতে মুসল্লিদের জন্য ১২ হাজারের বেশি মসজিদ প্রস্তুত রয়েছে। সৌদি আরবের এই শহরটিতে ১২ হাজার ১০৪টি মসজিদে নামাজ আদায় করতে পারবেন মুসল্লিরা। এর মধ্যে ৪৬০টি মসজিদই মক্কার কেন্দ্রে অবস্থিত।

মক্কায় অবস্থিত ইসলামী বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের শাখা রমজানের আগেই বিভিন্ন মসজিদের সামগ্রিক প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। সোমবার (১১ মার্চ) দেশটির প্রথম রোজা শুরু হয়েছে।

মসজিদ এবং নারীদের নামাজের স্থানে পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পরিষ্কার করা, কার্পেট পরিষ্কার করা, সুগন্ধি দেওয়া এবং রক্ষণাবেক্ষণের কাজ ইতোমধ্যেই শেষ হয়েছে । রমজানে সবচেয়ে বেশি মানুষ ওমরাহ পালন করতে আসেন। সে কারণে মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদে এ সময় প্রচুর মুসল্লির আগমন ঘটে।

সৌদি আরবের মসজিদগুলো রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব পালন করছে ইসলামিক বিষয়ক মন্ত্রণালয়। ইতোমধ্যেই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে নির্দেশিকা জারি করেছে। মসজিদের ভেতরে ইফতার পরিবেশনের পরিবর্তে বাইরে একটি নির্দিষ্ট স্থানে আয়োজন করতে বলা হয়েছে। এতে মসজিদের ভেতরে পরিষ্কার-পরিচ্ছনতা বজায় থাকবে।

এছাড়া মসজিদের ভেতরে ক্যামেরা ব্যবহারের নিষেধাজ্ঞা আনা হয়েছে। অনেকেই নামাজের সময় ক্যামেরা দিয়ে ছবি তোলেন বা ভিডিও করেন যা নামাজের মনোযোগে ব্যাঘাত ঘটায়।

এছাড়া রমজানে তারাবির নামাজ দীর্ঘ না করতে এবং রোজাদারদের সুবিধার জন্য রোজার বিভিন্ন নিয়মকানুনের বিষয়ে খুতবা দেওয়ার জন্য ইমামদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।

সারাবিশ্বেই মুসল্লিদের কাছে রমজান মাস অত্যন্ত পবিত্র মাস। আল্লাহর সন্তুষ্টির আশায় এই মাসে মুসলিমরা সূর্য উদয় থেকে অস্ত পর্যন্ত না খেয়ে সিয়াম সাধনা করেন।