ঢাকা , রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শেয়ারবাজারে ৩ শতাংশ সর্কিট ব্রেকার প্রত্যাহার করার দাবি

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৯:২৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪
  • 7

তিন শতাংশ কৃত্রিম সার্কিট ব্রেকার তুলে যত দ্রুত সম্ভব শেয়ারবাজারকে নিজের গতিতে ফিরিয়ে আনার দাবি জানিয়েছেন ডিএসই ব্রোকারেজ এসোসিয়েশনের (ডিবিএ) নেতারা।

আজ বুধবার (১৫ মে) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের মতিঝিল কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত ডিবিএ নেতৃবৃন্দের সাথে ডিএসইর বৈঠকে এসব কথা তুলে ধরেন ডিবিএ নেতারা।

ডিবিএ নেতারা বলেন, শেয়ারবাজারকে স্বাভাবিক গতিতে চলতে না দিলে দীর্ঘমেয়াদি উন্নয়ন সম্ভব নয়। তারা লিস্টিং রেগুলেশনেও পরিবর্তন আনার দাবি তোলেন।

নেতৃবৃন্দ বলেন, শেয়ারবাজারে ভালো ভালো কোম্পানিগুলোকে তালিকাভুক্তকরণে নজর দিতে হবে। ভালো কোম্পানি আসলে বাজারে বিনিয়োগকারীরা বিনিয়োগে উৎসাহিত হবে। বাজারে যেন বাজে আইপিও না আসে। সেক্ষেত্রে আইপিওগুলো দেওয়ার আগে সুনিশ্চিতভাবে কোম্পানিগুলোর তথ্য জানতে হবে। পাশাপাশি সহযোগী প্রতিষ্ঠান এবং মেকারদের প্রয়োজনীয় সুবিধাগুলো দিতে হবে।

ডিবিএ নেতারা আরও জানায়, সিসিবিএল একটি গুরুত্বপূর্ণ মার্কেট কম্পোনেন্ট। যতো জলদি সম্ভব সিসিবিএল-কে কার্যকর করে বিজনেস প্রমোট করতে হবে। সার্ভেলেন্স সিস্টেমে মাঝে মাঝে অনেক খারাপ দূর্ঘটনা ঘটে। সেক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণ সংস্থাগুলোকে আরও কঠোর হতে হবে।

কালো টাকা সাদা করার প্রসঙ্গে ডিবিএ নেতারা বলেন, প্রতিবছর বাজেটে কালো টাকা সাদা করার একটি সুযোগ দেয়া হয়। কালোটাকা সাদা করার মাধ্যম যদি শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ হয়, তবে এই সিদ্ধান্তের ফলে বাজারের মূলধন অনেকটাই বৃদ্ধি পাবে।

ডিবিএ নেতৃবৃন্দ বলেন, এসএমই মার্কেটকে রিভিউ করতে হবে। এখন সময় এসেছে এসএমই মার্কেটকে নিয়ে কাজ করার। ক্যাটাগরি পরিবর্তনে আরও বিচক্ষণ হতে হবে। এসময় ক্যাপিটাল গেইনের উপর করারোপ না করার দাবীও জানান ডিএসই ব্রোকারেজ এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ।

ডিবিএর সকল দাবীর প্রেক্ষিতে বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে ডিএসই চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. হাফিজ মোহাম্মদ হাসান বাবু বলেন, আমাদেরে মূল উদ্দেশ্য শেয়ারবাজারের উন্নয়ন। শেয়ারবাজারকে অর্থনীতির সাথে সম্পৃক্ত না করতে পারলে, জিডিপিতে শেয়ারবাজারের অংশীদারত্ব বাড়াতে না পারলে কখনোই ভালো হবেনা। সে উদ্দেশ্যেই আমরা বার বার সকলের সাথে বসছি।

তিনি বলেন, ডিবিএ খুব শিগগিরই আমাদেরকে তাদের দাবিগুলো লিখিত ভাবে দিবেন। শেয়ারবাজারের উন্নয়নে আমরা তাদের দাবিগুলো নিয়ে কাজ করবো।

বৈঠকে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এটিএম তারিকুজ্জামান, ডিবিএ প্রেসিডেন্ট সাইফুল ইসলাম, ডিবিএ সাবেক প্রেসিডেন্ট রিচার্ড ডি রোজারিও সহ ডিএসই এবং ডিবিএর কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

শেয়ারবাজারে ৩ শতাংশ সর্কিট ব্রেকার প্রত্যাহার করার দাবি

আপডেট সময় ০৯:২৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪

তিন শতাংশ কৃত্রিম সার্কিট ব্রেকার তুলে যত দ্রুত সম্ভব শেয়ারবাজারকে নিজের গতিতে ফিরিয়ে আনার দাবি জানিয়েছেন ডিএসই ব্রোকারেজ এসোসিয়েশনের (ডিবিএ) নেতারা।

আজ বুধবার (১৫ মে) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের মতিঝিল কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত ডিবিএ নেতৃবৃন্দের সাথে ডিএসইর বৈঠকে এসব কথা তুলে ধরেন ডিবিএ নেতারা।

ডিবিএ নেতারা বলেন, শেয়ারবাজারকে স্বাভাবিক গতিতে চলতে না দিলে দীর্ঘমেয়াদি উন্নয়ন সম্ভব নয়। তারা লিস্টিং রেগুলেশনেও পরিবর্তন আনার দাবি তোলেন।

নেতৃবৃন্দ বলেন, শেয়ারবাজারে ভালো ভালো কোম্পানিগুলোকে তালিকাভুক্তকরণে নজর দিতে হবে। ভালো কোম্পানি আসলে বাজারে বিনিয়োগকারীরা বিনিয়োগে উৎসাহিত হবে। বাজারে যেন বাজে আইপিও না আসে। সেক্ষেত্রে আইপিওগুলো দেওয়ার আগে সুনিশ্চিতভাবে কোম্পানিগুলোর তথ্য জানতে হবে। পাশাপাশি সহযোগী প্রতিষ্ঠান এবং মেকারদের প্রয়োজনীয় সুবিধাগুলো দিতে হবে।

ডিবিএ নেতারা আরও জানায়, সিসিবিএল একটি গুরুত্বপূর্ণ মার্কেট কম্পোনেন্ট। যতো জলদি সম্ভব সিসিবিএল-কে কার্যকর করে বিজনেস প্রমোট করতে হবে। সার্ভেলেন্স সিস্টেমে মাঝে মাঝে অনেক খারাপ দূর্ঘটনা ঘটে। সেক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণ সংস্থাগুলোকে আরও কঠোর হতে হবে।

কালো টাকা সাদা করার প্রসঙ্গে ডিবিএ নেতারা বলেন, প্রতিবছর বাজেটে কালো টাকা সাদা করার একটি সুযোগ দেয়া হয়। কালোটাকা সাদা করার মাধ্যম যদি শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ হয়, তবে এই সিদ্ধান্তের ফলে বাজারের মূলধন অনেকটাই বৃদ্ধি পাবে।

ডিবিএ নেতৃবৃন্দ বলেন, এসএমই মার্কেটকে রিভিউ করতে হবে। এখন সময় এসেছে এসএমই মার্কেটকে নিয়ে কাজ করার। ক্যাটাগরি পরিবর্তনে আরও বিচক্ষণ হতে হবে। এসময় ক্যাপিটাল গেইনের উপর করারোপ না করার দাবীও জানান ডিএসই ব্রোকারেজ এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ।

ডিবিএর সকল দাবীর প্রেক্ষিতে বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে ডিএসই চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. হাফিজ মোহাম্মদ হাসান বাবু বলেন, আমাদেরে মূল উদ্দেশ্য শেয়ারবাজারের উন্নয়ন। শেয়ারবাজারকে অর্থনীতির সাথে সম্পৃক্ত না করতে পারলে, জিডিপিতে শেয়ারবাজারের অংশীদারত্ব বাড়াতে না পারলে কখনোই ভালো হবেনা। সে উদ্দেশ্যেই আমরা বার বার সকলের সাথে বসছি।

তিনি বলেন, ডিবিএ খুব শিগগিরই আমাদেরকে তাদের দাবিগুলো লিখিত ভাবে দিবেন। শেয়ারবাজারের উন্নয়নে আমরা তাদের দাবিগুলো নিয়ে কাজ করবো।

বৈঠকে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এটিএম তারিকুজ্জামান, ডিবিএ প্রেসিডেন্ট সাইফুল ইসলাম, ডিবিএ সাবেক প্রেসিডেন্ট রিচার্ড ডি রোজারিও সহ ডিএসই এবং ডিবিএর কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।