ঢাকা , রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইদহের এমপি আনার ভারতে গিয়ে নিখোঁজ

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ১১:৪৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪
  • 29

সীমান্ত এলাকা ঝিনাইদহ-৪ আসনের টানা তিনবারের সংসদ সদস্য (এমপি) ও কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারুল আজীম আনার রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়েছেন। ১২ মে ভারতে যাওয়ার আগে সবাইকে বলছিলেন, চিকিৎসা ও বন্ধুর মেয়ের বিয়ে উপলক্ষে সেখানে যাচ্ছেন তিনি। তার খোঁজ পেতে বাংলাদেশ ও ভারতের গোয়েন্দারা এরই মধ্যে কাজ শুরু করেছেন।

১৩ মে রাত পর্যন্ত আজিমের ব্যক্তিগত সহকারী (পিএস) আবদুর রউফের সঙ্গে তার কথা হয়েছিল। ১৬ মে সকাল ৭টা ৪৬ মিনিটে আজিমের ফোন নম্বর থেকে পিএস রউফের ফোনে সর্বশেষ কল আসে। সেটি তাৎক্ষণিকভাবে ধরতে পারেননি পিএস। এক মিনিট পর পিএস তাকে ফোন দিলে তা ধরেননি এমপি আজিম। এর পর থেকে তার সঙ্গে আর কেউ যোগাযোগ করতে পারেনি। এর পর থেকে আজিমের হদিস নেই। তিনি নিখোঁজ, নাকি তার অন্য কোনো কিছু হয়েছে– এ নিয়ে রহস্য দানা বেঁধেছে।

বাংলাদেশ পুলিশের একজন শীর্ষ কর্মকর্তা গত রাতে সমকালকে জানান, ১৬ মে একই সময়ে এমপির দুটি মোবাইল ফোন নম্বরের অবস্থান (লোকেশন) দুই এলাকায় দেখা যায়। একটি বেনাপোল সীমান্তে, অন্যটি ভারতের মোজাফফরাবাদে। একই ব্যক্তির দুটি সিম নম্বর একই সময়ে ভিন্ন ভিন্ন জায়গায় দেখানোয় রহস্য আরও ঘনীভূত হয়। অপর এক কর্মকর্তা জানান, আজিম ভারতে গিয়ে সব সময় যে গাড়ি ব্যবহার করেন, সেটি পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। চালককেও পাওয়া গেছে। তবে এমপির খোঁজ মেলেনি।

ট্যাগস

ঝিনাইদহের এমপি আনার ভারতে গিয়ে নিখোঁজ

আপডেট সময় ১১:৪৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪

সীমান্ত এলাকা ঝিনাইদহ-৪ আসনের টানা তিনবারের সংসদ সদস্য (এমপি) ও কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারুল আজীম আনার রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়েছেন। ১২ মে ভারতে যাওয়ার আগে সবাইকে বলছিলেন, চিকিৎসা ও বন্ধুর মেয়ের বিয়ে উপলক্ষে সেখানে যাচ্ছেন তিনি। তার খোঁজ পেতে বাংলাদেশ ও ভারতের গোয়েন্দারা এরই মধ্যে কাজ শুরু করেছেন।

১৩ মে রাত পর্যন্ত আজিমের ব্যক্তিগত সহকারী (পিএস) আবদুর রউফের সঙ্গে তার কথা হয়েছিল। ১৬ মে সকাল ৭টা ৪৬ মিনিটে আজিমের ফোন নম্বর থেকে পিএস রউফের ফোনে সর্বশেষ কল আসে। সেটি তাৎক্ষণিকভাবে ধরতে পারেননি পিএস। এক মিনিট পর পিএস তাকে ফোন দিলে তা ধরেননি এমপি আজিম। এর পর থেকে তার সঙ্গে আর কেউ যোগাযোগ করতে পারেনি। এর পর থেকে আজিমের হদিস নেই। তিনি নিখোঁজ, নাকি তার অন্য কোনো কিছু হয়েছে– এ নিয়ে রহস্য দানা বেঁধেছে।

বাংলাদেশ পুলিশের একজন শীর্ষ কর্মকর্তা গত রাতে সমকালকে জানান, ১৬ মে একই সময়ে এমপির দুটি মোবাইল ফোন নম্বরের অবস্থান (লোকেশন) দুই এলাকায় দেখা যায়। একটি বেনাপোল সীমান্তে, অন্যটি ভারতের মোজাফফরাবাদে। একই ব্যক্তির দুটি সিম নম্বর একই সময়ে ভিন্ন ভিন্ন জায়গায় দেখানোয় রহস্য আরও ঘনীভূত হয়। অপর এক কর্মকর্তা জানান, আজিম ভারতে গিয়ে সব সময় যে গাড়ি ব্যবহার করেন, সেটি পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। চালককেও পাওয়া গেছে। তবে এমপির খোঁজ মেলেনি।