ঢাকা , শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডা. সিরাজুল ইসলামের মৃত্যুতে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর শোক

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৭:৫৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪
  • 24

জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানের (নিটোর) সাবেক পরিচালক অধ্যাপক ডা. কেএম সিরাজুল ইসলাম মারা গেছেন। তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন।

মঙ্গলবার (২১ মে) এক শোকবার্তায় মন্ত্রী বলেন, অত্যন্ত বেদনার সঙ্গে জানাচ্ছি, জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানের (নিটোর) সাবেক পরিচালক অধ্যাপক ডা. কেএম সিরাজুল ইসলাম গত ১৯ মে দিসগত রাতে বার্ধক্যজনিত কারণে যুক্তরাষ্ট্রে নিজ বাসভবনে মৃত্যুবরণ করেন। একজন প্রখ্যাত চিকিৎসা শিক্ষক এবং স্বপ্নবান প্রশাসক হিসেবে তাকে স্মরণ করা হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, তিনি আমার শিক্ষক এবং পরামর্শদাতা ছিলেন। ব্যক্তিগতভাবে তিনি আমার পরিচিত এবং একজন স্নেহভাজন হিসেবে তার সঙ্গে কাজ করার সুযোগ হয়েছিল। তার মৃত্যুতে জাতি চিকিৎসা বিজ্ঞানে একজন কীর্তিমানকে হারালো।

শোকবার্তায় মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত ও শান্তি কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

এক বিবৃতিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, অধ্যাপক ডা. কেএম সিরাজুল ইসলামের মৃত্যুতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকসহ সব কর্মকর্তা-কর্মচারী শোক জানাচ্ছে। একই সঙ্গে তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করছে।

গত রোববার রাতে যুক্তরাষ্ট্রে নিজ বাসভবনে মৃত্যুরবণ করেন অধ্যাপক ডা. সিরাজুল ইসলাম।

ট্যাগস

ডা. সিরাজুল ইসলামের মৃত্যুতে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর শোক

আপডেট সময় ০৭:৫৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪

জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানের (নিটোর) সাবেক পরিচালক অধ্যাপক ডা. কেএম সিরাজুল ইসলাম মারা গেছেন। তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন।

মঙ্গলবার (২১ মে) এক শোকবার্তায় মন্ত্রী বলেন, অত্যন্ত বেদনার সঙ্গে জানাচ্ছি, জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানের (নিটোর) সাবেক পরিচালক অধ্যাপক ডা. কেএম সিরাজুল ইসলাম গত ১৯ মে দিসগত রাতে বার্ধক্যজনিত কারণে যুক্তরাষ্ট্রে নিজ বাসভবনে মৃত্যুবরণ করেন। একজন প্রখ্যাত চিকিৎসা শিক্ষক এবং স্বপ্নবান প্রশাসক হিসেবে তাকে স্মরণ করা হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, তিনি আমার শিক্ষক এবং পরামর্শদাতা ছিলেন। ব্যক্তিগতভাবে তিনি আমার পরিচিত এবং একজন স্নেহভাজন হিসেবে তার সঙ্গে কাজ করার সুযোগ হয়েছিল। তার মৃত্যুতে জাতি চিকিৎসা বিজ্ঞানে একজন কীর্তিমানকে হারালো।

শোকবার্তায় মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত ও শান্তি কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

এক বিবৃতিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, অধ্যাপক ডা. কেএম সিরাজুল ইসলামের মৃত্যুতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকসহ সব কর্মকর্তা-কর্মচারী শোক জানাচ্ছে। একই সঙ্গে তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করছে।

গত রোববার রাতে যুক্তরাষ্ট্রে নিজ বাসভবনে মৃত্যুরবণ করেন অধ্যাপক ডা. সিরাজুল ইসলাম।