ঢাকা , শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

উগান্ডাকে ৫৮ রানে গুঁড়িয়ে দিলো আফগানিস্তান

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ১২:৪৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ জুন ২০২৪
  • 13

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই বড় জয় তুলে নিয়েছে আফগানিস্তান। রহমানউল্লাহ গুরবাজ ও ইব্রাহীম জাদরানের ব্যাটে ভর করে ১৮৩ রানের বড় পুঁজি নিশ্চিত করার পর উগান্ডাকে ৫৮ রানে গুঁড়িয়ে দিয়ে ১২৫ রানের বড় জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে রশিদ খানের দল।

আফগানিস্তানের দেয়া বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই বিপর্যয়ে পড়ে উগান্ডা। প্রথম ওভারেই ফজলহক ফারুকির তোপে উপরের সারির দুই ব্যাটারকে হারায় তারা। দ্বিতীয় ওভারে ফিরে যান দলটির আরেক ব্যাটার। ইনিংসের পঞ্চম ওভারে নাভিন উল হক নেন জোড়া উইকেট। ফলে ১৮ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে যায় উগান্ডা। ষষ্ঠ উইকেটে রিয়াজাত আলী শাহ ও রবিনসন অবুয়া মিলে দলের হাল ধরার চেষ্টা করেন। ১৩তম ওভারে আবারও বল হাতে নিয়ে টানা দুই বলে দুই উইকেট তুলে নেন ফারুকি। আর তাতেই বড় হারের শঙ্কায় পড়ে উগান্ডা।

এরপর উগান্ডা অধিনায়ক ব্রায়ান মাসাবার উইকেট তুলে নিয়ে ৫ উইকেট নেয়ার কীর্তি গড়েন ফারুকি। নিজের শেষ ওভারে টানা দুই বলে দুই উইকেট তুলে নিয়ে উগান্ডার ইনিংস গুটিয়ে দিয়েছেন রশিদ।

এর আগে এই ম্যাচে আগে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত শুরু পায় আফগানিস্তান। ওপেনিং জুটিতেই ইব্রাহীম জাদরান ও রহমানউল্লাহ গুরবার মিলে ১৫৪ রান যোগ করেন। এই জুটিতেই মূলত আফগানদের বড় সংগ্রহের ভিত পায় আফগানিস্তান। ৪৬ বলে ৯টি চার ও একটি ছক্কায় ৭০ রান করে আউট হয়েছেন জাদরান। আর তাতেই আফগানিস্তানের ওপেনিং জুটি ভেঙেছে। আফগান এই ওপেনারকে এগিয়ে গিয়ে বড় শট খেলতে গিয়ে বলের লাইন মিস করে বোল্ড হয়েছেন তিনি ব্রায়ান মাসাবার বলে।

আরেক ওপেনার গুরবাজ মাত্র ৪৫ বল খেলে ৪টি ছক্কা ও ৪টি চারে সর্বোচ্চ ৭৬ রান করেছেন। তাকে ফিরিয়েছেন আলপেশ রামজানি। নিচু হওয়া বলে স্কয়ার দিয়ে সুইপ করতে চেয়েছিলেন গুরবাজ। তবে ব্যাটে বলে করতে পারেননি ডিপ ব্যাকওয়ার্ড স্কয়ারে দারুণ ক্যাচ নিয়েছেন রিয়াজাত আলী শাহ। এই দুই ওপেনারের বিদায়ের পর আফগানিস্তানের ব্যাটারদের আসা যাওয়া শুরু হয়। শেষ পাঁচ ওভারে তারা তুলতে পেরেছে মাত্র ২৫ রান। এর ফলে দুশোর নিচেই থামতে হয় তাদের। মোহাম্মদ নবি শেষ পর্যন্ত ১৪ রান করে অপরাজিত থেকে মাঠ ছেড়েছেন। উগান্ডার হয়ে দুটি করে উইকেট নেন মাসাবা ও সমস কুয়েটা। বাকি একটি উইকেট পেয়েছেন রামজানি।

ট্যাগস

উগান্ডাকে ৫৮ রানে গুঁড়িয়ে দিলো আফগানিস্তান

আপডেট সময় ১২:৪৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ জুন ২০২৪

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই বড় জয় তুলে নিয়েছে আফগানিস্তান। রহমানউল্লাহ গুরবাজ ও ইব্রাহীম জাদরানের ব্যাটে ভর করে ১৮৩ রানের বড় পুঁজি নিশ্চিত করার পর উগান্ডাকে ৫৮ রানে গুঁড়িয়ে দিয়ে ১২৫ রানের বড় জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে রশিদ খানের দল।

আফগানিস্তানের দেয়া বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই বিপর্যয়ে পড়ে উগান্ডা। প্রথম ওভারেই ফজলহক ফারুকির তোপে উপরের সারির দুই ব্যাটারকে হারায় তারা। দ্বিতীয় ওভারে ফিরে যান দলটির আরেক ব্যাটার। ইনিংসের পঞ্চম ওভারে নাভিন উল হক নেন জোড়া উইকেট। ফলে ১৮ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে যায় উগান্ডা। ষষ্ঠ উইকেটে রিয়াজাত আলী শাহ ও রবিনসন অবুয়া মিলে দলের হাল ধরার চেষ্টা করেন। ১৩তম ওভারে আবারও বল হাতে নিয়ে টানা দুই বলে দুই উইকেট তুলে নেন ফারুকি। আর তাতেই বড় হারের শঙ্কায় পড়ে উগান্ডা।

এরপর উগান্ডা অধিনায়ক ব্রায়ান মাসাবার উইকেট তুলে নিয়ে ৫ উইকেট নেয়ার কীর্তি গড়েন ফারুকি। নিজের শেষ ওভারে টানা দুই বলে দুই উইকেট তুলে নিয়ে উগান্ডার ইনিংস গুটিয়ে দিয়েছেন রশিদ।

এর আগে এই ম্যাচে আগে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত শুরু পায় আফগানিস্তান। ওপেনিং জুটিতেই ইব্রাহীম জাদরান ও রহমানউল্লাহ গুরবার মিলে ১৫৪ রান যোগ করেন। এই জুটিতেই মূলত আফগানদের বড় সংগ্রহের ভিত পায় আফগানিস্তান। ৪৬ বলে ৯টি চার ও একটি ছক্কায় ৭০ রান করে আউট হয়েছেন জাদরান। আর তাতেই আফগানিস্তানের ওপেনিং জুটি ভেঙেছে। আফগান এই ওপেনারকে এগিয়ে গিয়ে বড় শট খেলতে গিয়ে বলের লাইন মিস করে বোল্ড হয়েছেন তিনি ব্রায়ান মাসাবার বলে।

আরেক ওপেনার গুরবাজ মাত্র ৪৫ বল খেলে ৪টি ছক্কা ও ৪টি চারে সর্বোচ্চ ৭৬ রান করেছেন। তাকে ফিরিয়েছেন আলপেশ রামজানি। নিচু হওয়া বলে স্কয়ার দিয়ে সুইপ করতে চেয়েছিলেন গুরবাজ। তবে ব্যাটে বলে করতে পারেননি ডিপ ব্যাকওয়ার্ড স্কয়ারে দারুণ ক্যাচ নিয়েছেন রিয়াজাত আলী শাহ। এই দুই ওপেনারের বিদায়ের পর আফগানিস্তানের ব্যাটারদের আসা যাওয়া শুরু হয়। শেষ পাঁচ ওভারে তারা তুলতে পেরেছে মাত্র ২৫ রান। এর ফলে দুশোর নিচেই থামতে হয় তাদের। মোহাম্মদ নবি শেষ পর্যন্ত ১৪ রান করে অপরাজিত থেকে মাঠ ছেড়েছেন। উগান্ডার হয়ে দুটি করে উইকেট নেন মাসাবা ও সমস কুয়েটা। বাকি একটি উইকেট পেয়েছেন রামজানি।