ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইউক্রেনকে ক্লাস্টার বোমা দেওয়ায় অস্বস্তিতে মার্কিন মিত্ররা

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০১:০৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১০ জুলাই ২০২৩
  • 166

রাশিয়ার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ব্যবহারের জন্য ইউক্রেনকে ক্লাস্টার বোমা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। সবকিছু ঠিক থাকলে কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই এ বোমা ইউক্রেনের হাতে পৌঁছাবে। তবে ইউক্রেনকে ক্লাস্টার বোমা সরবরাহের ওয়াশিংটনের সিদ্ধান্তে যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি মিত্র অস্বস্তি প্রকাশ করেছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র শুক্রবার নিশ্চিত করেছিল যে, দেশটি ইউক্রেনে এই বিতর্কিত অস্ত্র পাঠাচ্ছে। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এটিকে ‘খুব কঠিন সিদ্ধান্ত’ বলে অভিহিত করেছেন।

এই সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়ায়, যুক্তরাজ্য, কানাডা, নিউজিল্যান্ড এবং স্পেন বলেছে যে, তারা এই অস্ত্র ব্যবহারের বিরোধী।

রাশিয়া, ইউক্রেন এবং যুক্তরাষ্ট্র ক্লাস্টার বোমা সংক্রান্ত কনভেনশনে স্বাক্ষর করেনি। মূলত ওই কনভেনশনে এই ধরনের অস্ত্র উৎপাদন, মজুদ, ব্যবহার এবং স্থানান্তর নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

তবে কনভেনশনে স্বাক্ষরকারী স্পেন বলেছে, তারা ইউক্রেনকে ক্লাস্টার বোমা দেওয়ার বিষয়ে মার্কিন এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছে।

উল্লেখ্য, ১০০টিরও বেশি দেশ ক্লাস্টার বোমা নিষিদ্ধ করেছে। কারণ এটি বেসামরিক মানুষের জন্য বিপদ ডেকে আনে। অবিস্ফোরিত বোমাগুলো বছরের পর বছর মাটিতে পড়ে থাকতে পারে। তারপর সেগুলো বিস্ফোরণ ঘটাতে পারে।

ট্যাগস

ইউক্রেনকে ক্লাস্টার বোমা দেওয়ায় অস্বস্তিতে মার্কিন মিত্ররা

আপডেট সময় ০১:০৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১০ জুলাই ২০২৩

রাশিয়ার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ব্যবহারের জন্য ইউক্রেনকে ক্লাস্টার বোমা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। সবকিছু ঠিক থাকলে কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই এ বোমা ইউক্রেনের হাতে পৌঁছাবে। তবে ইউক্রেনকে ক্লাস্টার বোমা সরবরাহের ওয়াশিংটনের সিদ্ধান্তে যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি মিত্র অস্বস্তি প্রকাশ করেছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র শুক্রবার নিশ্চিত করেছিল যে, দেশটি ইউক্রেনে এই বিতর্কিত অস্ত্র পাঠাচ্ছে। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এটিকে ‘খুব কঠিন সিদ্ধান্ত’ বলে অভিহিত করেছেন।

এই সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়ায়, যুক্তরাজ্য, কানাডা, নিউজিল্যান্ড এবং স্পেন বলেছে যে, তারা এই অস্ত্র ব্যবহারের বিরোধী।

রাশিয়া, ইউক্রেন এবং যুক্তরাষ্ট্র ক্লাস্টার বোমা সংক্রান্ত কনভেনশনে স্বাক্ষর করেনি। মূলত ওই কনভেনশনে এই ধরনের অস্ত্র উৎপাদন, মজুদ, ব্যবহার এবং স্থানান্তর নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

তবে কনভেনশনে স্বাক্ষরকারী স্পেন বলেছে, তারা ইউক্রেনকে ক্লাস্টার বোমা দেওয়ার বিষয়ে মার্কিন এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছে।

উল্লেখ্য, ১০০টিরও বেশি দেশ ক্লাস্টার বোমা নিষিদ্ধ করেছে। কারণ এটি বেসামরিক মানুষের জন্য বিপদ ডেকে আনে। অবিস্ফোরিত বোমাগুলো বছরের পর বছর মাটিতে পড়ে থাকতে পারে। তারপর সেগুলো বিস্ফোরণ ঘটাতে পারে।