ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সুপার এইটে উঠেছি, এখন যা পাবো সবই বোনাস: হাথুরুসিংহে

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০২:৫৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪
  • 22

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের লক্ষ্য ছিল প্রথম রাউন্ড পেরিয়ে সুপার এইটে খেলা, সেই লক্ষ্য পূরণ হয়েছে। এখন আর হারানোর কিছু নেই। এই পর্বে যা পাওয়া যাবে সবই বোনাস বলে মন্তব্য করেছেন দলের হেড কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে।

হাথুরু বলেন, ‘যখন আমরা টুর্নামেন্টে আসি, আমাদের প্রথম লক্ষ্য ছিল এই সুপার এইটে উঠা। তাই আমি মনে করি, আমরা দারুণভাবে তা অর্জন করেছি… । আমি বলতে পারি, বোলাররা আমাদের এখন পর্যন্ত প্রতিযোগিতায় টিকিয়ে রেখেছে? যে কারণে আমরা অবস্থান নিয়েই খেলেছি। সত্যিই ভালো; কন্ডিশন আমাদের পক্ষে কাজ করেছে।’

‘সুতরাং আমাদের এগিয়ে যাওয়া এবং এই পর্যায়ে আসতে পেরে আমরা খুব খুশি। এখান থেকে আমাদের যা কিছু আসবে, সবকিছুই বোনাস। তাই, আমরা অনেক স্বাধীনতা নিয়ে খেলি। আমরা তিনটি দলকেই চ্যালেঞ্জ জানাতে যাচ্ছি। আমরা আমাদের সেরাটাই দিতে পারি’- যোগ করেন হাথুরু।

শান্ত কেন রান পাচ্ছেন না, এমন প্রশ্নে হাথুরু বলেন, ‘শুধু শান্ত নয়। আপনি যদি দেখেন, তাহলে দেখবেন বেশিরভাগ দলের টপঅর্ডাররাই টুর্নামেন্টে লড়াই করছে। কারণ, নতুন বলে পিচগুলো একটু কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। আসল বিষয়টি হলো, কোনো দলই জানে না, ভালো স্কোরটা কেমন। শীর্ষ ২-৩ ব্যাটারকে অবশ্যই কন্ডিশন মূল্যায়ন করতে হবে। তারপর তাদের খেলার মাধ্যমে মূল্যায়ন করতে হবে।’

বাংলাদেশের সুপার এইটের যাত্রা শুরু হবে আগামীকাল শুক্রবার ভোর সাড়ে ৬টায়। প্রতিপক্ষ গেল বছরের ওয়ানডে বিশ্বকাপজয়ী অস্ট্রেলিয়া। এরইমধ্যে দুই দলই সেরে নিয়েছে নিজেদের প্রস্তুতি। বিশ্ব আসরে অসিদের কাছে হারের বৃত্ত থেকে বাংলাদেশ বের হতে পারে কিনা, সেটিই এখন দেখার।

ট্যাগস

সুপার এইটে উঠেছি, এখন যা পাবো সবই বোনাস: হাথুরুসিংহে

আপডেট সময় ০২:৫৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের লক্ষ্য ছিল প্রথম রাউন্ড পেরিয়ে সুপার এইটে খেলা, সেই লক্ষ্য পূরণ হয়েছে। এখন আর হারানোর কিছু নেই। এই পর্বে যা পাওয়া যাবে সবই বোনাস বলে মন্তব্য করেছেন দলের হেড কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে।

হাথুরু বলেন, ‘যখন আমরা টুর্নামেন্টে আসি, আমাদের প্রথম লক্ষ্য ছিল এই সুপার এইটে উঠা। তাই আমি মনে করি, আমরা দারুণভাবে তা অর্জন করেছি… । আমি বলতে পারি, বোলাররা আমাদের এখন পর্যন্ত প্রতিযোগিতায় টিকিয়ে রেখেছে? যে কারণে আমরা অবস্থান নিয়েই খেলেছি। সত্যিই ভালো; কন্ডিশন আমাদের পক্ষে কাজ করেছে।’

‘সুতরাং আমাদের এগিয়ে যাওয়া এবং এই পর্যায়ে আসতে পেরে আমরা খুব খুশি। এখান থেকে আমাদের যা কিছু আসবে, সবকিছুই বোনাস। তাই, আমরা অনেক স্বাধীনতা নিয়ে খেলি। আমরা তিনটি দলকেই চ্যালেঞ্জ জানাতে যাচ্ছি। আমরা আমাদের সেরাটাই দিতে পারি’- যোগ করেন হাথুরু।

শান্ত কেন রান পাচ্ছেন না, এমন প্রশ্নে হাথুরু বলেন, ‘শুধু শান্ত নয়। আপনি যদি দেখেন, তাহলে দেখবেন বেশিরভাগ দলের টপঅর্ডাররাই টুর্নামেন্টে লড়াই করছে। কারণ, নতুন বলে পিচগুলো একটু কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। আসল বিষয়টি হলো, কোনো দলই জানে না, ভালো স্কোরটা কেমন। শীর্ষ ২-৩ ব্যাটারকে অবশ্যই কন্ডিশন মূল্যায়ন করতে হবে। তারপর তাদের খেলার মাধ্যমে মূল্যায়ন করতে হবে।’

বাংলাদেশের সুপার এইটের যাত্রা শুরু হবে আগামীকাল শুক্রবার ভোর সাড়ে ৬টায়। প্রতিপক্ষ গেল বছরের ওয়ানডে বিশ্বকাপজয়ী অস্ট্রেলিয়া। এরইমধ্যে দুই দলই সেরে নিয়েছে নিজেদের প্রস্তুতি। বিশ্ব আসরে অসিদের কাছে হারের বৃত্ত থেকে বাংলাদেশ বের হতে পারে কিনা, সেটিই এখন দেখার।