ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সস্ত্রীক ভোট দিলেন ডিএমপি কমিশনার

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৩:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুলাই ২০২৩
  • 179

ঢাকা-১৭ আসনের উপ-নির্বাচনে ভোট দিলেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার গোলাম ফারুক। তার স্ত্রীও একই আসনের ভোটার।

সোমবার (১৭ জুলাই) দুপুর সোয়া ২টায় বনানী বিদ্যা নিকেতন স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে ভোট দেওয়া শেষে সাংবাদিকদের তিনি বলেন. ভোটার উপস্থিতি কম, তবে কোথাও কোনো ঝামেলা হয়নি। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

এদিকে, ঢাকা-১৭ আসনের উপ-নির্বাচন ঘিরে গুলশান এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এসব এলাকার প্রত্যেকটি চেকপোস্ট ও প্রবেশপথে চলছে তল্লাশি। বহিরাগতদের প্রবেশ ঠেকাতে ও মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধে সতর্ক অবস্থানে পুলিশ।

ইসির তথ্যানুযায়ী, উপ-নির্বাচনের সাধারণ কেন্দ্রে ১৯ জন ও ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র পাহারায় ২১ জনের পুলিশ-আনসারের সমন্বয়ে ফোর্স নিয়োজিত রয়েছে। তারা দায়িত্ব পালন করবে ভোটের পরের দিন পর্যন্ত। তবে অঙ্গীভূত আনসার পাঁচদিনের জন্য নিয়োজিত থাকবে। এছাড়া পুলিশ, এপিবিএন ও ব্যাটালিয়ন আনসারের ১৫টি, র‌্যাবের ছয়টি টিম ও ১০ প্লাটুন বিজিবি সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। নির্বাচনী আচরণবিধি প্রতিপালন নিশ্চিত করার জন্য নিয়োগ করা হয়েছে ২৫ জন নির্বাহী ও পাঁচজন বিচারিক ম্যাজিস্ট্রেট।

ট্যাগস

সস্ত্রীক ভোট দিলেন ডিএমপি কমিশনার

আপডেট সময় ০৩:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুলাই ২০২৩

ঢাকা-১৭ আসনের উপ-নির্বাচনে ভোট দিলেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার গোলাম ফারুক। তার স্ত্রীও একই আসনের ভোটার।

সোমবার (১৭ জুলাই) দুপুর সোয়া ২টায় বনানী বিদ্যা নিকেতন স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে ভোট দেওয়া শেষে সাংবাদিকদের তিনি বলেন. ভোটার উপস্থিতি কম, তবে কোথাও কোনো ঝামেলা হয়নি। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

এদিকে, ঢাকা-১৭ আসনের উপ-নির্বাচন ঘিরে গুলশান এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এসব এলাকার প্রত্যেকটি চেকপোস্ট ও প্রবেশপথে চলছে তল্লাশি। বহিরাগতদের প্রবেশ ঠেকাতে ও মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধে সতর্ক অবস্থানে পুলিশ।

ইসির তথ্যানুযায়ী, উপ-নির্বাচনের সাধারণ কেন্দ্রে ১৯ জন ও ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র পাহারায় ২১ জনের পুলিশ-আনসারের সমন্বয়ে ফোর্স নিয়োজিত রয়েছে। তারা দায়িত্ব পালন করবে ভোটের পরের দিন পর্যন্ত। তবে অঙ্গীভূত আনসার পাঁচদিনের জন্য নিয়োজিত থাকবে। এছাড়া পুলিশ, এপিবিএন ও ব্যাটালিয়ন আনসারের ১৫টি, র‌্যাবের ছয়টি টিম ও ১০ প্লাটুন বিজিবি সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। নির্বাচনী আচরণবিধি প্রতিপালন নিশ্চিত করার জন্য নিয়োগ করা হয়েছে ২৫ জন নির্বাহী ও পাঁচজন বিচারিক ম্যাজিস্ট্রেট।